,

সংবাদ শিরোনাম :
«» টেকনাফে ৮ দোকান পুড়ে ছাই «» টেকনাফ সীমান্তে ৪ কোটি ৫০ লাখ টাকার ইয়াবা উদ্ধার «» টেকনাফে ইয়াবাসহ জাদীমুড়ার আব্দুল্লাহ ও জলিল আটক «» শাহপরীর দ্বীপের ইয়াবা রমজান আটক: শীর্ষক সংবাদের একাংশের প্রতিবাদ «» শাহপরীর দ্বীপের ইয়াবা সম্রাট রমজান ইয়াবাসহ চট্রগ্রামে আটক : ধরাছোয়ার বাইরে অপর সহযোগীরা «» বরিশালে আটক ৪ রোহিঙ্গাকে কক্সবাজার ক্যাম্পে প্রেরণ «» ৭ খুন মামলায় ২৬ জনের ফাঁসির আদেশ «» ৭ খুনের আসামিদের জবানবন্দি; ইনজেকশন পুশ ও শ্বাসরোধে মারা হয় «» সাংবাদিক নুরুল করিম রাসেলর “মা” আর নেই : এশার নামাজের পর জানাযা «» পর্যটন শিল্প রক্ষায় সেন্টমাটিনে টেকসই বেড়ীবাঁধ নির্মাণের দাবীতে ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন «» ইইউ পার্লামেন্টে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন মঙ্গলবার «» আখেরি মোনাজাতে বিশ্বের শান্তি কামনা «» সাংবাদিক নুরুল করিম রাসেল’র “মা” আর নেই : টেকনাফ নিউজ 24 ডটকম পরিবারের শোক «» রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে কাজ করবে ট্রাম্প «» কুয়াকাটা হবে বিশ্বমানের পর্যটন কেন্দ্র: অর্থমন্ত্রী «» শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এবার পায়ুপথে সোয়া কেজি স্বর্ণ উদ্ধার «» অবশেষে ‘অ্যাপেন্ডিক্স’ রহস্যের সমাধান! «» ৬ শর্তে নির্বাচনে যাবে বিএনপি «» টেকনাফে তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের হামলায় ৪ জন গুরুতর আহত «» শাহপরীরদ্বীপ বেড়িবাঁধ সেনা তত্ত্বাবধানে বাস্তবায়নের দাবিতে মানববন্ধন «» ঘুমধুমে পাহাড় ধসে নিহত ১, নিখোঁজ ৩ «» আগামী নির্বাচনে সবাই আসবে: আশা প্রধানমন্ত্রীর «» হোয়াইক্যং নয়া পাড়া সিরাজুল উলুম দাখিল মাদ্রাসায় শিক্ষক আবশ্যক «» রোহিঙ্গাদের ফেরাতে আগ্রহ দেখিয়েছে মিয়ানমার «» টানা ১৫ বছর ক্ষমতার স্বপ্ন দেখছে আ.লীগ «» যুক্তরাষ্ট্র নির্বাচনে ‘কারচুপি’র প্রতিবেদন প্রকাশ «» ১০ টাকার চালের ৫৪ হাজার টন আত্মসাৎ ওজনে ব্যাপক কারচুপি: সিপিডি «» অশুভ শক্তিকে প্রতিহত করতে সক্ষম সেনাবাহিনী: প্রধানমন্ত্রী «» বিজিবিকে বিএসএফের ১৮ কুকুর উপহার «» রাজনৈতিক দলগুলোর মতৈক্য চান রাষ্ট্রপতি

টেকনাফে ট্রান্সফরমার লসের গ্যাড়াকলে পড়ে ৮ গ্রাহকের হয়রানী

ssssসাইদুর রহমান সোহেল, টেকনাফ: বিদ্যুৎ চোর ধরিয়ে দিতে গিয়ে ট্রান্সফরমার লস্ এর গ্যাড়াকলে পড়ে ৮ জন নিয়মিত গ্রাহক বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারছেননা বলে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে লিখিত আবেদন ও বিদ্যুৎ চোরদের হাতেনাতে ধরার পরও কোন প্রতিকার না হওয়ায় একদিকে যেমন বিদ্যুৎ চুরি বাড়ছে, অন্যদিকে নিয়মিত গ্রাহক গণের হয়রানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ সমস্যার কারণে ৮জন গ্রাহক গত ১ বছর ধরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা থেকে বিরত রয়েছেন। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দরগাহছড়া গ্রামে। সরেজমিন পরিদর্শণে গিয়ে  জানা যায়, উক্ত গ্রামের নুর আহমদ হিসাব নং- ৩৯৫০, হোছন আহমদ হিসাব নং- ৩৭০০, এনামুল হক হিসাব নং- ২২১৫, আব্দুর রহমান হিসাব নং -৪০৫৫, আমির হামজা হিসাব নং – ৪০৫২, নুর হোসেন হিসাব নং -৪০৫০, আমিনা খাতুন হিসাব নং-২২২০, জহির আহমদ হিসাব নং -৩৭৫০ পল্লি বিদ্যুতের নিয়মিত গ্রাহক। ওই গ্রামের হাজ্বী আবুল বশর, শামসুননাহার, পারুল আক্তার, নসরত আলী, ফরিদ আহমদ, আব্্দুল জব্বার সওদাগর, আমির হোসেন, মীর আহমদ, কবির আহমদ ও জামাল হোসেন এ ১১ জন দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যুৎ লাইনে হুকিং করে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে আসছে। উক্ত গ্রামের বাসিন্দা লম্বরী মলকাবানু হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইসমাইল জানান, অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের সাথে টেকনাফ পল্লি বিদুৎ অফিসের কতিপয় কর্মীদের যোগসাজস রয়েছে। ফলে গ্রামে বিদ্যুৎ চুরি রোধ করা সম্ভব হচ্ছেনা। এমনকি বিদুৎকর্মীদের এনে অবৈধভাবে বিদুৎ ব্যবহারকারীদের ধরিয়ে দেয়া ও পাম্প মেশিন উদ্ধার করা সত্তেও তাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বিদ্যুৎ চোরদের  দাপট ক্রমে বেড়েই চলছে। উপরন্তু অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের ধরিয়ে দেয়ার খেসারত দিতে হচ্ছে বৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের। এই অসহ্য হয়রানী থেকে প্রতিকার পেতে বৈধ গ্রাহকগণ গত ২১ আগস্ট ও ১৯ ডিসেম্বর দু’ দফায় লিখিতভাবে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জিএম কক্সবাজার, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট টেকনাফ, ডিজিএম ও টেকনাফ মডেল থানার ওসি বরাবর আবেদন করা সত্বেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি। বরং ট্রান্সফরমারের নীচে একটি অতিরিক্ত মিটার বসিয়ে দেয়া হয়েছে। এই মিটার রিডিং নিয়ে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিলগুলো বৈধ ব্যবহারকারীদের নামে বিলের সাথে প্রতিমাসে প্রায় ১ হাজার টাকা করে অতিরিক্ত দাবী করা হচ্ছে। যার কারণে বিল পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি আক্ষেপ করে আরো জানান- অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে পল্লি বিদুৎ সমিতিকে সহযোগীতা করতে গিয়ে বর্তমানে উভয় সংকটে পড়েছে বৈধ বিদ্যুৎ গ্রাহকগণ। একদিকে বহাল তবিয়তে থাকা বিদ্যুৎ চোরদের টিটকারী অন্যদিকে ট্রান্সফরমার লসের নামে পল্লি বিদ্যুতের অতিরিক্ত বিল। ২১ জানুয়ারী বিকালে এব্যাপারে জানতে চাইলে টেকনাফ পল্লি বিদ্যুতের ডিজিএম জানান, বিদ্যুত চুরি বন্ধ করতে না পেরে  উক্ত মিটার লাগানো ও অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে।

(1108) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।