,

সংবাদ শিরোনাম :
«» সিয়েরা লিওনে বন্যা ও ভূমিধস: এখন পর্যন্ত উদ্ধার ৫০০ মরদেহ «» টেকনাফে বিজিবির ফের পৃথক অভিযানে ৩০হাজার ইয়াবা উদ্ধার : আটক-১ «» এবার চট্টগ্রামে ইয়াবাসহ আনসার সদস্য গ্রেফতার «» কক্সবাজারে ১৯ ইয়াবা ব্যবসায়ীর ১০ বছর কারাদন্ড «» ভরসা রাখুন, প্রত্যেকেই রিলিফ পাবে: প্রধানমন্ত্রী «» পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট প্রধানমন্ত্রীকে অযোগ্য করেছেন: সিনহা «» টেকনাফে হুন্ডি ও বিকাশের রমরমা বণিজ্য: ইয়াবার বিপরীতে কোটি কোটি বাংলা টাকা মিয়ানমারে পাচার হচ্ছে «» টেকনাফে কথিত সাংবাদিকের ভাই সহ আটক-৩, দু্ই হাজার ইয়াবা, নগদ টাকা, বিয়ার উদ্ধার «» বন্যা পরিস্থিতি ক্রমেই বন্যা ভয়াবহ, মানবিক বিপর্যয়ের শঙ্কা রেড ক্রসের «» উন্নয়নের নামে মানুষকে নিঃস্ব করা হচ্ছে:সুলতানা কামাল «» কাটাকুটি ছাড়াই অনুমতি পেল ‘খাস জমিন «» ২৫০ টাকা দরে গরুর মাংস খাওয়াব «» ইয়াবা চোরাচালান রোধে বাংলাদেশ-মিয়ানমার বৈঠক ২০আগস্ট «» শেখ মুজিব কে নিয়ে কুটক্তি করায় কক্সবাজার সরকারি কলেজের ৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার «» হোয়াইক্যং হাইওয়ে পুলিশের অভিযান ইয়াবাসহ আটক-১ «» টেকনাফে অনুপ্রবেশের সময় রোহিঙ্গাদের একটি নৌকা ফেরত পাঠিয়েছে কোস্ট গার্ড «» ফয়সালের হ্যাটট্রিকে শ্রীলঙ্কাকে উড়িয়ে দিল বাংলাদেশ «» তৃতীয় জিপিএস স্যাটেলাইট পাঠালো জাপান «» বাঁশখালীতে ১২হাজার ইয়াবা সহ হোয়াইক্যং সাতঘরিয়া পাড়ার রুবেল আটক «» এবার ইয়াবা পাচারে কোস্টগার্ড সদস্য, শাহপরীরদ্বীপের আকতারসহ গ্রেফতার- ২ «» অভিনেত্রী রিয়া সেনের বিয়ের গুঞ্জন «» সিনহার উপস্থিতিতে বঙ্গভবনে কাদের কেন: রিজভী «» পাথর ছুড়ে যুদ্ধ ভারত-চীনা সেনাদের «» অংশগ্রহণমূলক ভোটের পরিবেশ তৈরির পরামর্শ সাংবাদিকদের «» ভারতে বন্যায় ৬০০ জনের মৃত্যু «» নিহত ‘জঙ্গি’ শিবির কর্মী, পরিকল্পনা ছিল শোকের আয়োজনে হামলার «» ২০ হাজার ইয়াবাসহ উখিয়া যুবলীগ নেতা ফয়েজ আটক «» ইসলাম গ্রহণ করে মালয়েশিয়ার প্রিন্সেসকে ঘরে তুললেন তিনি «» টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা «» রোনালদোর উপর পাঁচ ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা

টেকনাফে ট্রান্সফরমার লসের গ্যাড়াকলে পড়ে ৮ গ্রাহকের হয়রানী

ssssসাইদুর রহমান সোহেল, টেকনাফ: বিদ্যুৎ চোর ধরিয়ে দিতে গিয়ে ট্রান্সফরমার লস্ এর গ্যাড়াকলে পড়ে ৮ জন নিয়মিত গ্রাহক বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারছেননা বলে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে লিখিত আবেদন ও বিদ্যুৎ চোরদের হাতেনাতে ধরার পরও কোন প্রতিকার না হওয়ায় একদিকে যেমন বিদ্যুৎ চুরি বাড়ছে, অন্যদিকে নিয়মিত গ্রাহক গণের হয়রানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ সমস্যার কারণে ৮জন গ্রাহক গত ১ বছর ধরে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করা থেকে বিরত রয়েছেন। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দরগাহছড়া গ্রামে। সরেজমিন পরিদর্শণে গিয়ে  জানা যায়, উক্ত গ্রামের নুর আহমদ হিসাব নং- ৩৯৫০, হোছন আহমদ হিসাব নং- ৩৭০০, এনামুল হক হিসাব নং- ২২১৫, আব্দুর রহমান হিসাব নং -৪০৫৫, আমির হামজা হিসাব নং – ৪০৫২, নুর হোসেন হিসাব নং -৪০৫০, আমিনা খাতুন হিসাব নং-২২২০, জহির আহমদ হিসাব নং -৩৭৫০ পল্লি বিদ্যুতের নিয়মিত গ্রাহক। ওই গ্রামের হাজ্বী আবুল বশর, শামসুননাহার, পারুল আক্তার, নসরত আলী, ফরিদ আহমদ, আব্্দুল জব্বার সওদাগর, আমির হোসেন, মীর আহমদ, কবির আহমদ ও জামাল হোসেন এ ১১ জন দীর্ঘদিন ধরে বিদ্যুৎ লাইনে হুকিং করে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে আসছে। উক্ত গ্রামের বাসিন্দা লম্বরী মলকাবানু হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইসমাইল জানান, অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের সাথে টেকনাফ পল্লি বিদুৎ অফিসের কতিপয় কর্মীদের যোগসাজস রয়েছে। ফলে গ্রামে বিদ্যুৎ চুরি রোধ করা সম্ভব হচ্ছেনা। এমনকি বিদুৎকর্মীদের এনে অবৈধভাবে বিদুৎ ব্যবহারকারীদের ধরিয়ে দেয়া ও পাম্প মেশিন উদ্ধার করা সত্তেও তাদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বিদ্যুৎ চোরদের  দাপট ক্রমে বেড়েই চলছে। উপরন্তু অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের ধরিয়ে দেয়ার খেসারত দিতে হচ্ছে বৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের। এই অসহ্য হয়রানী থেকে প্রতিকার পেতে বৈধ গ্রাহকগণ গত ২১ আগস্ট ও ১৯ ডিসেম্বর দু’ দফায় লিখিতভাবে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জিএম কক্সবাজার, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট টেকনাফ, ডিজিএম ও টেকনাফ মডেল থানার ওসি বরাবর আবেদন করা সত্বেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি। বরং ট্রান্সফরমারের নীচে একটি অতিরিক্ত মিটার বসিয়ে দেয়া হয়েছে। এই মিটার রিডিং নিয়ে অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিলগুলো বৈধ ব্যবহারকারীদের নামে বিলের সাথে প্রতিমাসে প্রায় ১ হাজার টাকা করে অতিরিক্ত দাবী করা হচ্ছে। যার কারণে বিল পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছেনা। তিনি আক্ষেপ করে আরো জানান- অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে পল্লি বিদুৎ সমিতিকে সহযোগীতা করতে গিয়ে বর্তমানে উভয় সংকটে পড়েছে বৈধ বিদ্যুৎ গ্রাহকগণ। একদিকে বহাল তবিয়তে থাকা বিদ্যুৎ চোরদের টিটকারী অন্যদিকে ট্রান্সফরমার লসের নামে পল্লি বিদ্যুতের অতিরিক্ত বিল। ২১ জানুয়ারী বিকালে এব্যাপারে জানতে চাইলে টেকনাফ পল্লি বিদ্যুতের ডিজিএম জানান, বিদ্যুত চুরি বন্ধ করতে না পেরে  উক্ত মিটার লাগানো ও অবৈধ বিদ্যুৎ ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে।

(1108) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।