Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» এ মাসেই এসএসসির ফল প্রকাশ, আগামী মাসে একাদশে ভর্তি কার্যক্রম শুরু «» অসহায় সেই ৭৩ বাবা-মাকে র‌্যাব কর্মকর্তার ‘ঈদ উপহার «» হঠাৎ করে খালেদা জিয়ার ডাক পেলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল «» ৬৪ শতাংশ শিশুর পরিবার কঠিন খাদ্য সংকটে «» কোনো হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো যাবে না «» বাহরাইনে সাধারণ ক্ষমার মেয়াদে অবৈধ অবস্থানকারীদের আটক করা হবে না «» বিশ্বের সবচেয়ে বড় দানবাক্স আরব আমিরাতে বুর্জ খলিফা! «» লাদাখ সীমান্তে চীনা হেলিকপ্টার, যুদ্ধবিমান মোতায়েন ভারতের «» সিকিম সীমান্তে ভারত-চীন সেনাদের সংঘর্ষ «» দেখে নিন:এক নজরে কোন জেলায় কতজন করোনায় আক্রান্ত «» কাশ্মীর সীমান্তে উড়ছে পাকিস্তানি যুদ্ধবিমান, উদ্বিগ্ন ভারত «» অসহায় শিশু জয়নব কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন «» মাঠে নেই বিত্তশালী মন্ত্রী এমপিরা «» করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, একদিনে সর্বোচ্চ ৮৮৭ রোগী শনাক্ত «» করোনা চিকিৎসায় দেশে উৎপাদন হলো রেমডেসিভির «» টেকনাফের বাহারছড়ায় দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী কে হত্যার চেষ্টা আটক -৩ :অধরায় মূল হোতা «» দশ দিনেই চিকিৎসার সাফল্য ৪র্থ রিপোর্টেও নেগেটিভ : তুমব্রুর সেই করোনার প্রথম রোগীর জয় «» সৌদিতে করোনায় আক্রান্ত ৩৭১৭ বাংলাদেশি, মৃত ৫৫ «» কারাগারে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে সৌদি রাজকন্যা «» আমাদের মতো বেকুব জনগণের বেঁচে থাকার দরকারইবা কী? «» চলছে মাগফিরাতের ১০দিন «» সোমালিয়ায় করোনার ত্রাণবাহী বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৬ «» মধ্যপ্রাচ্যে করোনা ছড়িয়েছে ইরান! «» সবাই সরকারের প্রশংসা করলেও বিএনপি পারে না: তথ্যমন্ত্রী «» ৬ সপ্তাহে ১২ লাখ মানুষকে ত্রাণ দিয়েছে বিএনপি «» বিশ্বে করোনা আক্রান্তের তালিকায় উর্ধ্বমুখী বাংলাদেশ «» একদিনে ৭৮৬ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১ «» ১০ মে খুলবে দোকানপাট ও শপিংমল «» নতুন মাত্রায় লকডাউন,১০ দিনের আরও সাধারণ ছুটি দিয়েছে সরকার «» কেরালায় ‘নৌকাবাড়ি’তে হচ্ছে আইসোলেশন ওয়ার্ড

টেকনাফের বাহারছড়ায় দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী কে হত্যার চেষ্টা আটক -৩ :অধরায় মূল হোতা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের উপকূলীয় অঞ্চল বাহারছড়া ইউনিয়নের শীলখালী এলাকার ইয়াবা ডন সোনা আলী মেম্বার ও মানবপাচারের গডফাদার বাঘ শমসু ওরফে সামশু বাহিনীর হামলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী আহত হওয়ার ঘটনায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইতোমধ্যে ৩ জন কে আটক করেছে।
গত ০৭.০৫.২০২০ মৃত জাফর আলমের ছেলে আহত সলিম উল্লাহ বাদী হয়ে সামশুদ্দীন প্রকাশ বাঘ সামসুর ছেলে হেলাল উদ্দিনকে প্রধান আসামী করে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত নামা ৩/৪ জনকে আসামী করা হয়। টেকনাফ থানার মামলা নং-২২, জিআর মামলা নং-৪০৩। মামলার আসামীরা হচ্ছে, উত্তর শীলখালী এলাকার সামশুদ্দীন আহমদ প্রকাশ বাঘ সামশুর ছেলে হেলাল উদ্দিন, একই এলাকার সোনা আলীর ছেলে ফায়সাল, ছেলে হেলাল উদ্দিন, আবুল হোসনের ছেলে রহিম উল্লাহ, মৃত আবু বকরের ছেলে সামশুদ্দীন আহমেদ প্রকাশ বাঘ সামশু, তার ভাই মো.আলম, সামশুদ্দীন আহমেদ প্রকাশ বাঘ সামশু স্ত্রী আনোয়ারা বেগম মেম্বার, মো.হাশীমের ছেলে আবদুর রহমান, আবুল হোসনের ছেলে লুৎফুর রহমান, আবুল হোসনের ছেলে মো.সোনা আলী মেম্বার ও আব্বাসের ছেলে মো.ইসা।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছে। আহত ছাত্র দুই সহোদর । মাগরিবের নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে বের হওয়ার পরপরই এই হামলার শিকার হন তারা। আহতদের টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে,গত ৭ মে বৃহস্পতিবার মাগরিবের নামাজের পর বাহারছড়া উত্তর শীল খালী এলাকার মৃত জাফর আলমের দুই ছেলে সলিম উল্লাহ ও আজিজ উল্লাহ পাশ্ববর্তী মসজিদে মাগরিবের নামাজ শেষ করে বের হন। মসজিদ থেকে বের হওয়ায় সাথে সাথেই স্থানীয় ইয়াবা ডন খ্যাত সোনালী মেম্বারের নেতৃত্বে ১০/১২ জন দুবৃত্ত তাদেরকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে এবং এলোপাতাড়ি মারধর ও কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন। সোনালী মেম্বার হচ্ছে আত্মস্বীকৃত ও আত্মসমর্পনকারী ইয়াবা ব্যবসায়ী মো. আবু ছৈয়দ এর বাবা এবং সামশুদ্দীন আহমেদ প্রকাশ বাঘ সামশু মানবপাচার সহ বিভিন্ন মামলার আসামী।আহতরা হলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সেলিম উল্লাহ ও তার বড় ভাই চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান ইতিহাস বিভাগের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আজিজ উল্লাহ। স্থানীয় লোকজন আহত দুই সহোদরকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। আহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আজিজ উল্লাহ জানান, মসজিদে নামাজ পড়ে বাহিরে বের হওয়ার পরপরই কিছু বুঝে উঠার আগে ধারালো দা, ছুরি ও ইট নিয়ে সোনালী মেম্বারের নেতৃত্বে তার রহিম উল্লাহ, হেলাল উদ্দিন, ফায়সালসহ ৭/৮ জন তাদের উপর হামলা করে।
তিনি আরো জানান, আমাদের স্বত্ত্ব দখলীয় জমির উপর দিয়ে জোর করে সোনালী মেম্বার প্রভাব খাটিয়ে ব্যক্তিগত একটি রাস্তা নির্মাণ করেছে। এনিয়ে প্রতিবাদ করায় এবং সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে সরকারী ত্রাণ চুরির বিষয়ে কথা বলার জের ধরে ক্ষুব্ধ হয়ে পরিকল্পিত ভাবে এই হামলার ঘটনাটি ঘটিয়েছে। উল্লেখ্য যে, গরীবের জন্য রাষ্ট্রের দেওয়া ১০ টাকা দামের (ওএমএস) এর চাল আত্মসাৎ, বিতরণ তালিকা করতে অনিয়ম-দুর্নীতি, টাকার বিনিময়ে স্বজন পরিচিতদের খাদ্যসহায়তা দেওয়া এমনকি এনজিওদের দেওয়া নগদ অর্থ সহায়তাও হাপিস করার মত অভিযোগ উঠেছে আনোয়ারা বেগমের বিরুদ্ধে। জনপ্রতিনিধির এমন অভিযোগের প্রতিকার ও দুর্যোগের এই সময়ে সুষ্ঠুভাবে খাদ্যসহায়তা দেওয়ার দাবিতে গত ২৮ এপ্রিল টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে আলাদা লিখিত অভিযোগ করেছেন এলাকা নারী ও পুরুষসহ বেশ কয়েকজন । সেইসঙ্গে দুদক বা নিরপেক্ষ সংস্থার মাধ্যমে অভিযোগ-অনিয়মের সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ারও দাবি করেছেন তারা।করোনাদুর্যোগে গত ২৬শে মার্চ থেকে দেশজুড়ে সাধারণ ছুটি চলছে। কাজ নেই শ্রমজীবী মানুষের। এর মধ্যে বাজারে বেড়েছে মোটা চালের দাম। এরই মধ্যে অভিযুক্ত ইউপি সদস্য আনোয়ারা বেগম তার ওয়ার্ডে ১০ টাকা দামের ওএমএস এর চাল বিক্রির তালিকা নিয়ে অনিয়ম করেই যাচ্ছেন। এর মধ্যে উত্তর শিলখালী ৩ নম্বর ওয়ার্ডে ২২০ জনের মধ্যে ৭৬ জনের চাল আত্মসাৎ করা হয়েছে। উপজেলা থেকে তালিকাভুক্ত হয়ে আসা ১০ টাকা দামের চাল পাওয়ার মূল তালিকায় ৭৬ জনের নামের পাশে ক্রস দেওয়া হয়েছে। যার কারণে চালের ডিলারে চাল কিনতে গিয়ে ফিরে এসেছেন। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমও সরব হয়েছে। তবে অভিযোগের পাওয়ার পর টেকনাফ ইউএনওর নির্দেশ একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের কর্মকর্তা সানা উল্লাহর নেতৃত্বে একটি টিম ৩০শে এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকালে এলাকায় গিয়ে অভিযোগকারী ও ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। বিষয়টি নিয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ১০ দামে চাল ক্রয়ের জন্য বাহারছড়া ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যে তালিকা দেওয়া হয়েছে তা অনুমোদন করে ইউনিয়নে পাঠানো হয়েছে। ইউএনও অফিস থেকে কারো নামে ক্রস দেয়া হয়নি। এছাড়াও ভুক্তভোগীদের লিখিত অভিযোগের তদন্ত চলছে। কারা তালিকায় ক্রস দিয়ে অনিয়ম করছে তাদের ব্যাপারে যাচাই-বাছাই করে তদন্তে সত্যতা পাওয়া গেলে জড়িতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।এদিকে টেকনাফে দুই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র আহত করার ঘটনাটি তাৎক্ষনিক টেকনাফ থানার ওসিকে জানানোর পরপর বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৩ জন কে আটক করে। আটককৃতরা হলো, হেলাল উদ্দিন, মো.আলম ও মো.ইসা। পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, আটককৃত তিন আসামীকে শুক্রবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
এলাকাবাসী ও বিভিন্ন সুত্রে জানা গেছে, শীলখালীর সোনালী মেম্বার, তার পরিবার ও আত্মীয় স্বজব আত্মস্বীকৃত ইয়াবা কারবারী। সোনা আলী মেম্বারের ছেলে মো. আবু ছৈয়দসহ ১০২ জন তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি ২০১৯ সালের ১৬ ফ্রেব্রুয়ারি টেকনাফ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের উপস্থিতিতে আত্মসমর্পণ করেন। অনুষ্ঠান শেষে ওই দিনই দুটি মামলায় আটক দেখিয়ে আত্মসমর্পণকারীদের কক্সবাজার কারাগারে পাঠানো হয়। ১০২ ইয়াবা ব্যবসায়ীর মধ্যে একজন ছাড়া বাকি সবাই টেকনাফের বাসিন্দা। আত্মসমর্পণকারী ১০২ জন ইয়াবা কারবারির বিরুদ্ধে দায়ের করা দুটি মামলায় ১০১ জনের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট জমা দিয়েছে পুলিশ। গত ২০ জানুয়ারি কক্সবাজার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারিক হাকিম তামান্না ফারাহ এর আদালতে পুলিশ এ চার্জশিট জমা দেন। সোনালী মেম্বারের ছেলে মো. আবু ছৈয়দ কারাগারে থাকলেও পিতা সোনালী এবং তার আত্মীয় স্বজনেরা ইয়াবা কারবার অব্যাহত রেখেছে বলে অভিযোগ। সামশুদ্দীন আহমেদ প্রকাশ বাঘ শামশুর বিরুদ্ধে মানবপাচার মামলা গুলো হচ্ছে, টেকনাফ থানার জিআর-৫৮৩/১১, কক্সবাজার সদর মডেল থানার জিআর-৯৯৫/২০১৪, টেকনাফ থানার জিআর-২১৬/১৩, রামু থানার জিআর-২৬২/১৪, কক্সবাজার সদর থানার জিআর-৪১/১৫, টেকনাফ থানা মামলা নং- ১৯/১৪। এসব মানবপাচার মামলা,টেকনাফ থানার অপহরণ মামলা নং ২৩/১৪।
বাঘ শামশু ওই এলাকার বার্মাইয়া মহিলা মানোয়ারকে ভোটার করেন।

তার স্বামী গুটি বশর। যার অনেক ইয়াবা মামলা আছে এবং বাঘ শামশুর পার্টনার তাকেও ভোটার করেছিল। মহিলা মেম্বার আনোয়ারা বেগম, যিনি ২০১৩ সালে মহিলা মেম্বার আনোয়ারা বেগম আবারো পুরোনো পক্রিয়ায় ২০/৪/২০১৩ইং তার একমাত্র পুত্র হেলাল উদ্দিন কে সুদুর চট্রগ্রামে এক ইয়াবার আত্তানায় লুকিয়ে রেখে প্রতিপক্ষ কে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে ১৭/৪/২০১৩ থানায় জিডি করে। তারপর অপহরণ ঘটনা সাজিয়ে তার নিজ পুত্র কে এলাকা থেকে চট্রগ্রামে নিয়ে গিয়ে চট্রগ্রামে কোতোয়ালি থানা দিয়ে উদ্ধার করে। কিন্তু বিধিবাম তদন্তকালে পুলিশের হাতে আসল রহস্য বেরিয়ে আসে। বাঘ শামশু ও তার স্ত্রী আনোয়ারা প্রতিপক্ষকে গায়েল করতে এই ফন্দি এটেছিল। বিষয়টি ধরা পড়ায় তদন্ত অফিসার বাদী হয়ে আনোয়ারার বিরুদ্ধে মামলা করতে কোর্টে প্রতিবেদন দাখিল করে। পুলিশ সুপার কক্সবাজার, মাননীয় পুলিশ সুপার কক্সবাজার এখন এই মহিলা মেম্বারের ব্যাপক দূর্নীতি ও কুকৃতির বিরুদ্ধে এলাকার মানুষ ফুসে উঠায় এবং মহিলা মেম্বারের নানা অনিয়ম,দুর্নীতি,স্বজনপ্রীতি নিয়ে বিভিন্ন সংবাদপত্রে ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ করায় প্রশাসন তা নিয়ে তদন্তে নামে।তার নিয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে বিতর্কিত মহিলা মেম্বার আনোয়ারা কিছু সুশীল সমাজ ও সাংবাদিকের বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় একটি বানোয়াট এজাহার দায়ের করেছে। গত ০৫.০৫.২০২০ টেকনাফ মডেল থানায় সাংবাদিক ইউনিটির কর্নধার ও কমিউনিটি পুলিশের নেতা সাংবাদিক নুর হোছন কে ১ নং বিবাদী, বাহারছড়ার সমাজ সেবক ও কমিউনিটি পুলিশের নেতা আজিজ উল্লাহ কে ২ নং বিবাদী করে মোট-৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মিথ্যা এজাহার দেয়। এতে সুন্দরী মহিলা মেম্বার কে উক্তাক্ত,কু-কর্মের প্রস্তাব সহ হুমকি ধমকি দেয় বলে বলে কুরুচিপূর্ন ও আপত্তিজনক অভিযোগ আনে। যা সত্য নয় বলে প্রশাসনের একাধিক মহল নিশ্চিত হয়েছেন। মামলাবাজ মহিলা মেম্বার ও তার স্বামী বাঘ শমসুর বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। অপরদিকে ঘটনার মূল হোতা বাহারছড়া ইউনিয়নের শীলখালী এলাকার ইয়াবা ডন সোনা আলী মেম্বার ও মানবপাচারের গডফাদার বাঘ শমসু কে অধরায় থাকায় এলাকাবাসী অনতি বিলম্বে তাদেও আইনের আওতায় আনার দাবী জানান এলাকার স্বচেতন মহল।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।