Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» এ মাসেই এসএসসির ফল প্রকাশ, আগামী মাসে একাদশে ভর্তি কার্যক্রম শুরু «» অসহায় সেই ৭৩ বাবা-মাকে র‌্যাব কর্মকর্তার ‘ঈদ উপহার «» হঠাৎ করে খালেদা জিয়ার ডাক পেলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল «» ৬৪ শতাংশ শিশুর পরিবার কঠিন খাদ্য সংকটে «» কোনো হাসপাতাল থেকে রোগী ফেরানো যাবে না «» বাহরাইনে সাধারণ ক্ষমার মেয়াদে অবৈধ অবস্থানকারীদের আটক করা হবে না «» বিশ্বের সবচেয়ে বড় দানবাক্স আরব আমিরাতে বুর্জ খলিফা! «» লাদাখ সীমান্তে চীনা হেলিকপ্টার, যুদ্ধবিমান মোতায়েন ভারতের «» সিকিম সীমান্তে ভারত-চীন সেনাদের সংঘর্ষ «» দেখে নিন:এক নজরে কোন জেলায় কতজন করোনায় আক্রান্ত «» কাশ্মীর সীমান্তে উড়ছে পাকিস্তানি যুদ্ধবিমান, উদ্বিগ্ন ভারত «» অসহায় শিশু জয়নব কে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন «» মাঠে নেই বিত্তশালী মন্ত্রী এমপিরা «» করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ১৪ মৃত্যু, একদিনে সর্বোচ্চ ৮৮৭ রোগী শনাক্ত «» করোনা চিকিৎসায় দেশে উৎপাদন হলো রেমডেসিভির «» টেকনাফের বাহারছড়ায় দুই বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী কে হত্যার চেষ্টা আটক -৩ :অধরায় মূল হোতা «» দশ দিনেই চিকিৎসার সাফল্য ৪র্থ রিপোর্টেও নেগেটিভ : তুমব্রুর সেই করোনার প্রথম রোগীর জয় «» সৌদিতে করোনায় আক্রান্ত ৩৭১৭ বাংলাদেশি, মৃত ৫৫ «» কারাগারে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ভয়ে সৌদি রাজকন্যা «» আমাদের মতো বেকুব জনগণের বেঁচে থাকার দরকারইবা কী? «» চলছে মাগফিরাতের ১০দিন «» সোমালিয়ায় করোনার ত্রাণবাহী বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৬ «» মধ্যপ্রাচ্যে করোনা ছড়িয়েছে ইরান! «» সবাই সরকারের প্রশংসা করলেও বিএনপি পারে না: তথ্যমন্ত্রী «» ৬ সপ্তাহে ১২ লাখ মানুষকে ত্রাণ দিয়েছে বিএনপি «» বিশ্বে করোনা আক্রান্তের তালিকায় উর্ধ্বমুখী বাংলাদেশ «» একদিনে ৭৮৬ জনের করোনা শনাক্ত, মৃত্যু ১ «» ১০ মে খুলবে দোকানপাট ও শপিংমল «» নতুন মাত্রায় লকডাউন,১০ দিনের আরও সাধারণ ছুটি দিয়েছে সরকার «» কেরালায় ‘নৌকাবাড়ি’তে হচ্ছে আইসোলেশন ওয়ার্ড

চলছে মাগফিরাতের ১০দিন

মাওলানা ইউনুছ আরমানঃ চলছে রহমত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস রমজানুল মোবারক। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনার দ্বিতীয় ১০ দিনকে বলা হয় মাগফিরাতের দশক। অর্থাৎ ১১ তম রোজা থেকে ২০ তম রোজা পর্যন্ত মাগফিরাত। যার অর্থ ক্ষমা। রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, রমজানের প্রথম ১০ দিন রহমতের, দ্বিতীয় ১০ দিন মাগফিরাত লাভের এবং শেষ ১০ দিন জাহান্নাম থেকে মুক্তিলাভের। এ মাসে যখন একজন রোজাদার সারা বছরের নেকি ও পুণ্যের ঘাটতি পূরণের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা-সাধনা চালিয়ে যান এবং মাগফিরাতের ১০ দিনও অতিবাহিত করেন, তখন আল্লাহ তার গুনাহ-খাতা মাফ করে দেন। মাহে রমজানের প্রতি দিন-রাতেই অনেক মানুষকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দেওয়া হয় এবং দোয়া কবুল হয়। রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, মাহে রমজানের প্রতি রাতেই একজন ফেরেশতা ঘোষণা করতে থাকেন, হে পুণ্য অন্বেষণকারী! অগ্রসর হও, হে পাপাচারী! থামো, চোখ খোলো। তিনি আবার ঘোষণা করেন যে, ক্ষমাপ্রার্থীকে ক্ষমা করা হবে, অনুতপ্তের অনুতাপ গ্রহণ করা হবে এবং প্রার্থনাকারীর প্রার্থনা কবুল করা হবে। এ মাসে আল্লাহর দরবারে মাগফিরাত কামনা করলে, গরিব-দুঃখীদের প্রতি দান-সদকার পরিমাণ বাড়িয়ে দিলে, নিজে সব ধরনের খারাপ কাজ পরিহার করলে, আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য ইবাদত-বন্দেগি, জিকির-আজকার, তাসবিহ-তাহলিল, কোরআন তিলাওয়াত ও দোয়া-ইস্তেগফার করলে, মহান আল্লাহ তা’য়ালা তা অবশ্যই কবুল করেন। রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন যে, এ মাসে চারটি কাজ অবশ্যকরণীয়। দুটি কাজ এমন যে, তার দ্বারা তোমাদের প্রতিপালক সন্তুষ্ট হন। অবশিষ্ট দুটি এমন, যা ছাড়া তোমাদের কোনো গত্যন্তর নেই। এই চারটির মধ্যে একটি হলো কালেমায়ে শাহাদাত পাঠ করা, দ্বিতীয়টি হলো অধিক পরিমাণে ইস্তেগফার বা ক্ষমা প্রার্থনা করা। এ দুটি কাজ আল্লাহর দরবারে অতি পছন্দনীয়। তৃতীয় ও চতুর্থ হলো জান্নাত লাভের আশা করা ও জাহান্নাম থেকে পরিত্রাণের প্রার্থনা করা। এ দুটি এমন বিষয়, যা তোমাদের জন্য একান্ত প্রয়োজন। (ইবনে খুজাইমা) মাতৃগর্ভ থেকে মানুষ যেভাবে নিষ্পাপ অবস্থায় ভূমিষ্ঠ হয়, মাহে রমজানের ৩০ দিন যথাযথভাবে রোজা পালন করলে তেমন নিষ্কলুষ হয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। এসব মুমিন বান্দার মাগফিরাত ও নাজাতপ্রাপ্তি সম্পর্কে রাসূলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, যারা রমজানের চাঁদের প্রথম দিন থেকে শেষ দিন পর্যন্ত রোজা রেখেছে, তারা সেদিনের মতোই নিষ্পাপ হয়ে যাবে, যেদিন তাদের মাতা তাদের নিষ্পাপরূপে জন্ম দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, যে ব্যক্তি রমজান মাস পেয়ে নিষ্পাপ হতে পারল না, তার মতো হতভাগ্য এই জগতে আর কেউ নেই। সিয়াম সাধনার মধ্যে কোনোরকম ভুলত্রুটি হয়ে গেলে তৎক্ষণাৎ তওবা ও ইস্তেগফার করে নিজেদের সংশোধন করে নেওয়া দরকার। আল্লাহতায়ালা বলেন, আর তিনিই (আল্লাহ) তার বান্দাদের তওবা কবুল করেন এবং পাপগুলো ক্ষমা করে দেন।’ (সূরা আশ শুরা : আয়াত নং ১৫) অতএব, মুমিন বান্দাদের উচিত, মাগফিরাতের দশকটি আমল-ইবাদত, প্রার্থনা-মোনাজাতে কাটিয়ে আল্লাহতায়ালার ক্ষমালাভে ধন্য হওয়া।

লেখক: শিক্ষক দারুল ইরফান মুহিউচ্ছুন্নাহ,উনিছপ্রাং।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।