Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» রোহিঙ্গা ক্যাম্পে নৌ-বাহিনীর টহল ও প্রচারাভিযান «» দেড় লাখ রোহিঙ্গা পরিবারের মাঝে করোনা সচেতনতামূলক প্রচারপত্র বিলি করলো কোস্ট ট্রাস্ট «» চট্টগ্রাম পুলিশের অনন্য এক উদ্যোগ: ডোর টু ডোর শপ «» পুলিশকে বিনয়ী, সহিষ্ণু ও পেশাদার হওয়ার নির্দেশ «» মার্কিন কংগ্রেসের ৫ সদস্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত «» ভয়ঙ্কর পরিস্থিতিতে ইতালি, ৯ হাজারের বেশি মৃত্যু «» সেই এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসানকে প্রত্যাহার «» তিনজন বয়োজ্যেষ্ঠ নাগরিককে অপমান: বাড়িতে গিয়ে ক্ষমা চাইবে প্রশাসন «» সারা দেশে সব কিছু বন্ধ: রাস্তাঘাট জনশূন্য, সেনা-পুলিশের টহল «» পুলিশ ও বিজিবির সাথে গোলাগুলিতে ৪ জন নিহত, ৩ পুলিশ আহত «» ৭৮৭ দিন পর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অবস্থান: অবশেষে বাসায় ফিরলেন রিজভী «» ব্রিটেনে করোনায় আক্রান্ত ৬৬ লাখ! «» জুন পর্যন্ত কোনো কিস্তি আদায় নয়, তবে ঋণ দেওয়া যাবে «» অপপ্রচার বন্ধে টিভি চ্যানেল মনিটরিংয়ের দায়িত্বে ১৫ কর্মকর্তা «» যেন ঈদের ছুটিতে ছুটছেন সবাই! «» রাত ১২টার পর থেকে লক ডাউনে যাচ্ছে গোটা ভারত «» চট্টগ্রামে ১৬৩ কর্মীকে অগ্রিম বেতন দিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন টেকনাফের সন্তান জাবেদ «» লক ডাউনে দিন মজুরদের কথা ভুলবেন না : আল্লামা তাকি উসামানি «» কক্সবাজারে ১৪ চিকিৎসকসহ ২১ জন কোয়ারেন্টিনে «» হ্নীলায় বন্দুক যুদ্ধে নিহত বর্মাইয়্যা শমসুর ডানহাত খ্যাত দুই মহারতির ব্যাংক ব্যালেন্স সহ প্রচুর সম্পদ «» বিদেশফেরত ১৩ জনের মাধ্যমে সংক্রমিত হয়েছেন বাকি ২০ জন «» সাধারণ ছুটির সময় গণমাধ্যমের কার্যক্রম স্বাভাবিক থাকবে: তথ্যমন্ত্রী «» নেপালে করোনা আক্রান্ত ২, সারাদেশে লকডাউন «» শিক্ষাবিদদের পরামর্শ: মাদরাসা এবং সাধারণ শিক্ষার্থীরা কীভাবে কাটাবে করোনার ছুটি «» ভারতের ৩০ টি রাজ্যে লকডাউন «» সাজা মওকুফ করে ৬ মাসের জন্য খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিল সরকার «» জেএসসি পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি পেয়ে টেকনাফের সেরা স্থান অর্জন করেছে আব্দুল হাফিজ «» আরিফের সঙ্গে ডিসি সুলতানার ফোনালাপ ফাঁস: চুপচাপ থাকার পরামর্শ «» করোনাভাইরাসকে ‘সংক্রামক রোগ’ ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশের নির্দেশ «» ইতালির মর্গেও জায়গা নেই, শেষকৃত্যের জন্যও ওয়েটিং লিস্ট!

হ্নীলায় বন্দুক যুদ্ধে নিহত বর্মাইয়্যা শমসুর ডানহাত খ্যাত দুই মহারতির ব্যাংক ব্যালেন্স সহ প্রচুর সম্পদ

হ্নীলায় বন্দুক যুদ্ধে নিহত বর্মাইয়্যা শমসুর ডানহাত খ্যাত দুই মহারতির ব্যাংক ব্যালেন্স সহ প্রচুর সম্পদ
নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
টেকনাফ উপজেলার হ্নীলায় বন্দুক যুদ্ধে নিহত বর্মাইয়্যা শমসুর ডানহাত খ্যাত দুই মহারতি বীরদর্পে ঘুরলে ও সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হাতে আটক না হওয়ায় মাদক বিরোধী অভিযান নিয়ে কথা তুলেছে হ্নীলার স্বচেতন মহল। ইয়াবার টাকায় নির্মিত তাদের বিলাস বহুল বাড়িঘর দেখলে চমকে উঠার মতই। বর্মাইয়্যা শমসুর রেখে যাওয়া দৃষ্টিনন্দন বাড়ি ছাড়াও কয়েকটি নোয়া মাইক্রোবাস, প্রাভেট কার, দামি মোটরসাইকেল আর প্রচুর জমি বর্তমানে তারা ভোগ কওে রাজার হালতেই চলছে।হ্নীলার কথিত দুই রতি ইয়াবা ব্যবসা করে সম্প্রতি কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা-পয়সার মালিক বনে গেছে বলে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে। বর্তমানে এই দুই মহারতির রয়েছে নামে বে নামে বহু ব্যাংক ব্যালেন্স সহ প্রচুর সম্পদ। এই দুই মহারতির উত্থান সাধারণ মানুষ কে ভাবিয়ে তুলেছে। জানা যায়, হ্নীলায় ইয়াবা ব্যবসার জনক হিসাবে পরিচিত শামসুল আলম ওরফে বার্মাইয়া শামসু কতিপয় প্রভাবশালী মহলের সাথে হাত করে প্রথমে পূর্ব সিকদার পাড়ায় আস্তানা গাড়ে। এর পর পুরো হ্নীলায় তার একটি শক্তিশালী নেটওয়ার্ক গড়ে তুলে। বর্মাইয়্যা শমসু এ সুবাদে হ্নীলার এক কাঠ মিস্ত্রির মেয়ে কে বিয়ে করে। বিয়ের পর বেশ কয়েকটি মিনিবাস,ট্রাক,নোহা,মোটর সাইকেল,আলীশান মডেলের বাড়ি ও নির্মাণ করে। তার মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করতো কথিত দুই মহারতি। বর্মাইয়্যা শমসুর ইয়াবার টাকায় তারা ও গড়ে তুলে বিলাসবহুল বাড়ী। ২০১৯ সালের ২০ জানুয়ারী
পুলিশের হাতে গ্রেফতারের পর কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয় বর্মাইয়্যা শমসু। আরাকান সড়কের (কক্সবাজার-টেকনাফ সড়ক) হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়া বিজিবির চেকপোস্ট সংলগ্ন এলাকায় আইনশৃংখলা বাহিনীর সাথে গোলাগুলির ঘটনায় শমসু নিহত হয়। নিহত শামসুল আলম ওরফে বার্মাইয়া শামসু (৩৫) টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পশ্চিম সিকদার পাড়ার মোহাম্মদ হোসাইনের ছেলে। পুলিশ বলছে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের করা ‘শীর্ষ মাদক চোরাকারবারির তালিকায় শামসুর নাম ছিল। তার বিরুদ্ধে টেকনাফ থানায় মাদক আইনের ১০টি মামলা রয়েছে। ওসি প্রদীপ বলেন, পলাতক আসামি শামসুকে হ্নীলা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ইয়াবা উদ্ধারে তাকে নিয়ে অভিযানে বের হয় পুলিশের একটি দল। ভোর রাতে পুলিশ শামসুলকে নিয়ে দমদমিয়া চেকপোস্ট এলাকায় গেলে সেখানে অবস্থান নিয়ে থাকা তার সহযোগীরা গুলি ছোড়ে। পুলিশও এ সময় আত্মরক্ষার জন্য পাল্টা গুলি চালায়। একপর্যায়ে শামসু গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তার সহযোগীরা পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ শামসুলকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি। তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে দুটি বন্দুক, ১২ রাউন্ড গুলি ও ২০ হাজার ইয়াবা পাওয়া যায়। এ অভিযানের সময় পুলিশের তিন সদস্যও আহত হন। এদিকে বন্দুক যুদ্ধে নিহত বর্মাইয়্যা শমসুর ডানহাত খ্যাত হ্নীলার দুই মহারতির ব্যাংক ব্যালেন্স সহ প্রচুর সম্পদের বিষয়ে তদন্ত চলছে বলে ও খবর পাওয়া গেছে।
টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানায়, কোনও মাদক ব্যবসায়ীকেই ছাড় দেওয়া হবে না। যত প্রভাবশালী ই হোকনা কেন। যতক্ষণ পর্যন্ত ইয়াবা বন্ধ না হবে, ততক্ষণ এ অভিযান চলবে।#

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।