Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» মিয়ানমার থেকে পিয়াঁজ আমদানি অব্যাহতঃ কমছেনা দাম «» রোহিঙ্গা ডাকাতদের আতংকে এলাকাবাসীর ঘুম নেই :রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে গ্রামবাসী «» রামু উপজেলার পূর্ব গোয়ালিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় নারী পুরুষ সহ আহত-৭ «» বন্দর ও জাহাজ নির্মাণে (দুবাই) ইউএই’র বিনিয়োগ কামনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী «» বিশ্ব ইজতেমার আখেরি মোনাজাত সম্পন্ন «» আমিন আমিন’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত তুরাগ তীর «» হোয়াইক্যংয়ে ছুরিকাঘাতে এক স্কুল ছাত্র নিহত «» ২৬ জানুয়ারী হ্নীলা উম্মে সালমা ইসলামিয়া মহিলা দাখিল মাদ্রাসার ২য় বার্ষিক ইসলামী সম্মেলন «» ইরাকে মার্কিন দূতাবাসের কাছে আবারো রকেট হামলা «» ইরানের ক্ষেপণাস্ত্রে কোনো মার্কিন সৈন্য মারা যায়নি: ট্রাম্প «» ইরাকে ইরানি হামলায় মার্কিন সামরিক ঘাঁটির রাডার ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ধ্বংস! «» মাওলানা আবছার উদ্দিন চৌধুরী কে স্বপদে বহাল রাখায় আরব আমিরাতে শুকরানা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্টিত «» হারুন অর রশিদ এর মেয়ের জন্য দোয়া কামনা «» কক্সবাজারে ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধারে রেকর্ড «» বাংলাদেশের পাকিস্তান সফর নিয়ে তাড়াহুড়া করা উচিত নয় «» ১০ বছরে ৯ লাখ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়েছে: মেনন «» জেএসসি-পিইসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ৩১ ডিসেম্বর «» গ্রাম পুলিশকে ১৯ ও ২০তম গ্রেডে উন্নীত করার নির্দেশ «» ৫০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগে এগিয়ে চলছে নাফ ট্যুরিজম পার্কের কার্যক্রম «» ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে উত্তাল তেলআবিব «» টেকনাফ র‌্যাবের হাতে ২লাখ ইয়াবাসহ মিয়ানমার নাগরিক আটক «» রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত নিতে মিয়ানমারের প্রতি বান কি-মুনের আহ্বান «» মহেশখালীতে ১২ জলদস্যু বাহিনীর ৯৬ সদস্য অস্ত্র ও গুলি জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ «» কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত «» দাম বাড়ায় রাতে পেঁয়াজ ক্ষেত পাহারা «» লাতুরী খোলা মসজিদ নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ «» সশস্ত্র রোহিঙ্গা ডাকাত দলের খোঁজে র‍্যাবের হেলিকপ্টার অভিযান «» টেকনাফে কোটি টাকার ইয়াবাসহ উলুচামরীর মিজান আটক «» ঘুষের টাকাসহ ইনকাম ট্যাক্স ইন্সপেক্টর গ্রেফতার «» পিঁয়াজ আমদানিকারকদের পকেটে ১৫৯ কোটি টাকা

সিরিয়ায় তুরস্ক-রাশিয়ার যৌথ টহল

উত্তর সিরিয়ায় মঙ্গলবার আরেকটি যৌথ টহল চালিয়েছে তুরস্ক ও রাশিয়া। এমন এক সময় এই টহল চালানো হয়েছে, যখন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, তাদের পরিকল্পিত নিরাপদ অঞ্চলে এখনো সন্ত্রাসীরা অবস্থান করছে।

গত ২২ অক্টোবর রাশিয়ার সোচিতে রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান ও ভ্লাদিমির পুতিনের মধ্যে হওয়া চুক্তির অধীন কুর্দিশ পিপলস প্রটেকশন ইউনিটসের প্রত্যাহার নিশ্চিত করতে টহল অনুষ্ঠিত হয়েছে।এর আগে গত শুক্রবার দুই দেশের মধ্যে প্রথম টহল হয়েছে।

গেল সপ্তাহে তুর্কি সীমান্তের কাছে কুর্দিশ মিলিশিয়াদের পাশাপাশি টহল দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এ ঘটনার সমালোচনা করেছেন এরদোগান।

তিনি বলেন, দুর্ভাগ্যবশত, ওয়াইপিজি যোদ্ধাদের সঙ্গে নিজেদের টহল চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এমন ঘটনা অসম্ভব।

গেল অক্টোবরে তুরস্কের পিস স্প্রিং অভিযানের সময় সিরিয়ার রাস আল-আইন ও তাল আবিয়াদ থেকে সন্ত্রাসীদের অপসারণ করা হয়েছে।

সীমান্তের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ফোরাত নদীর পূর্বে উত্তর সিরিয়া থেকে সন্ত্রাসীদের উৎখাত করেছে তুর্কি বাহিনী।

২০ লাখের বেশি শরণার্থীকে ফেরত পাঠানোর স্বার্থে একটি নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠা করতে ওই অঞ্চলটি থেকে ওয়াইপিজি ও পিকেকে সন্ত্রাসীদের বিতাড়িত করতে চাচ্ছে তুরস্ক।

রাশিয়ার কাছ থেকে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ক্রয় নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের আচরণের সমালোচনা করেছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।