Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভে উত্তাল সারাদেশ «» টেকনাফ সড়কে কাভার্ড ভ্যান চাপায় কলেজ ছাত্রী মিনাবাজারের সাকি নিহত «» বিজিবির অভিযানে ঝুঁড়ি থেকে মিলল প্রায় ২২০০০ ইয়াবা «» ক্যাসিনো কেলেঙ্কারিতে বেরিয়ে আসছে থলের বিড়াল: দুর্নীতির বিপুল অঙ্কের টাকা থাইল্যান্ডে «» যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর ব্যাংক হিসাব তলব «» কাশ্মীরিদের আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকার নিয়ে কোনো আপস নয়: পাক সেনাপ্রধান «» ৮ দিন পর পৃথিবীতে অবতরণ করলেন আরব আমিরাতের মুসলিম নভোচারীরা «» দিনদিন কমছে ফজরের নামাজে মুসল্লির সংখ্যা; উত্তরণের উপায় কী? «» শুক্রবার সূরা কাহাফ তিলাওয়াতে রয়েছে বিশেষ ফজিলত «» ১৯৫৭ থেকে সেবা দিচ্ছে যে টেলিস্কো «» নিজের ধর্ম নিয়ে বক্তব্য দিয়ে বিতর্কে জড়ালেন অমিতাভ «» বিমানের পরিচ্ছন্নতাকর্মীর জুতায় ২ কোটি টাকার স্বর্ণের বার «» ভুটান কোচের দৃষ্টিতে সেরা জামাল «» বাহরাইনে বাড়ছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি, গত ১০ দিনে ৮ বাংলাদেশির মৃত্যু «» আরও ১১ এএসপি বদলি «» যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের নতুন যুগ্মসচিব রেখা রানী বালো «» খালেদা জিয়া কি মুক্তি পাচ্ছেন ? «» সৌদির ৩ ঘাঁটি ও ১৫০ বর্গকিমি. এলাকা দখলে নিয়েছে হুতিরা! «» খালেদা জিয়ার জামিন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মনোভাব জানালেন কাদের «» সব ইমাম-মুয়াজ্জিনকে সরকারি বেতন দিতে র‌্যাব মহাপরিচালকের প্রস্তাব «» কক্সবাজারে পেঁয়াজের মূল্য সর্বোচ্চ ৭০ টাকা : জেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্ত «» একটি মহল রোহিঙ্গাদের নিয়ে অশুভ খেলায় মেতে উঠেছে «» চতুর্দিক থেকে বিপদ আসছে, সতর্ক থাকুন: মির্জা ফখরুল «» বসবাসের অযোগ্য শহরের তালিকায় তৃতীয় ঢাকা «» কাশ্মীর নিয়ে ইমরান খানের সঙ্গে সৌদি-আমিরাত পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক «» হঠাৎ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল ভারতের পাঞ্জাব, নিহত ২১ «» সাংবাদিক জসিম উদ্দিন টিপুর পিতা আর নেই «» নাজিরপাড়া থেকে আটককৃত বিজিপির ৪ সদস্যকে মিয়ানমারে হস্তান্তর «» রোহিঙ্গা সমাবেশে সহযোগিতাকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে : বিভাগীয় কমিশনার «» রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় শেখ হাসিনার প্রশংসায় সৌদি নৌবাহিনীর প্রধান

৫২টি মানহীন ও ভেজাল পণ্য আগামী ১০ দিনের মধ্যে বাজার থেকে তুলে নেয়ার নির্দেশ আদালতর

প্রাণের তিন পণ্যসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি মানহীন ও ভেজাল পণ্য আগামী ১০ দিনের মধ্যে বাজার থেকে তুলে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে এসব পণ্যের উৎপাদক প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি মানহীন ও ভেজাল পণ্য নিয়ে শুনানিতে রোববার হাইকোর্টের বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালত এসব ভেজাল পণ্য অপসারণের পাশাপাশি সেগুলো ধ্বংস করার নির্দেশও দেন। আদালত বলেছেন, এগুলো ধ্বংস করে ফেলতে হবে যেন তৃতীয় কারও হাতে না যায়।

৫২টি পণ্য হলো- প্রাণের হলুদ গুঁড়া, ফ্রেশের হলুদ গুঁড়া, মোল্লা সল্টের আয়োডিন যুক্ত লবণ, প্রাণের কারি পাউডার, ড্যানিশের কারি পাউডার, সিটি ওয়েলের সরিষার তেল, গ্রিন ব্লিচিংয়ের সরিষার তেল, শমনমের সরিষার তেল, বাংলাদেশ এডিবল ওয়েলের সরিষার তেল, কাশেম ফুডের চিপস, আরা ফুডের ড্রিংকিং ওয়াটার, আল সাফির ড্রিংকিং ওয়াটার, মিজানের ড্রিংকিং ওয়াটার, মর্ণ ডিউয়ের ড্রিংকিং ওয়াটার, প্রাণের লাচ্ছা সেমাই, ডুডলি নুডলস, শান্ত ফুডের সফট ড্রিংক পাউডার, জাহাঙ্গীর ফুড সফট ড্রিংক পাউডার, ড্যানিশের হলুদের গুঁড়া, এসিআইয়ের ধনিয়ার গুঁড়া, বনলতার ঘি, পিওর হাটহাজারী মরিচ গুঁড়া, মিস্টিমেলার লাচ্ছা সেমাই, মধুবনের লাচ্ছা সেমাই, মিঠাইয়ের লাচ্ছা সেমাই, ওয়েল ফুডের লাচ্ছা সেমাই, এসিআইয়ের আয়োডিনযুক্ত লবণ, কিংয়ের ময়দা, রূপসার দই, মক্কার চানাচুর, মেহেদীর বিস্কুট, বাঘাবাড়ীর স্পেশাল ঘি, নিশিতা ফুডসের সুজি, মধুবনের লাচ্ছা সেমাই, মঞ্জিলের হলুদ গুঁড়া, মধুমতির আয়োডিনযুক্ত লবণ, সান ফুডের হলুদ গুঁড়া, গ্রিন লেনের মধু, কিরণের লাচ্ছা সেমাই, ডলফিনের মরিচের গুঁড়া, ডলফিনের হলুদের গুঁড়া, সূর্যের মরিচের গুঁড়া, জেদ্দার লাচ্ছা সেমাই, অমৃতের লাচ্ছা সেমাই, দাদা সুপারের আয়োডিনযুক্ত লবণ, মদিনার আয়োডিনযু্ক্ত লবণ ও নুরের আয়োডিনযুক্ত লবণ ডানকানের ন্যাচারাল মিনারেল ওয়াটার, আরার ডিউ ড্রিংকিং ওয়াটার, দীঘির ড্রিংকিং ওয়াটার।

এর আগে রোববার সকালে এসব মানহীন পণ্যের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্স অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই) ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের দুই কর্মকর্তা হাইকোর্টে আসেন। দুই কর্মকর্তা হলেন- বিএসটিআইয়ের পরিচালক প্রকৌশলী এসএম ইসহাক আলী ও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পরিচালক ড. সহদেব চন্দ্র সাহা।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান। বিএসটিআইয়ের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সরকার এমআর হাসান আর নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের পক্ষে অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম।

বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় অনুত্তীর্ণ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার করে নিতে রিটটি করেন কনসাস কনজুমার সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক পলাশ মাহমুদ।

পরিপ্রেক্ষিতে গত ৯ মে বিএসটিআইয়ের পরীক্ষায় প্রমাণিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ৫২টি ভেজাল ও নিম্নমাণের পণ্য জব্দ এবং এসব পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার ও উৎপাদন বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে কিনা সে বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে বিএসটিআই ও বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য অধিদফতরের দুই কর্মকর্তাকে তলব করেন হাইকোর্ট।

এ ব্যাপারে কনসাস কনজুমার সোসাইটির (সিসিএসের) নির্বাহী পরিচালক পলাশ মাহমুদ যুগান্তরকে বলেন, ‘প্রাণের মতো নামি প্রতিষ্ঠান আমাদের ভেজাল খাওয়ায়- এটা খুবই দুঃখজনক। মানুষ আসলে কাদের ওপর আস্থা রাখবে? এভাবে ১৬ কোটি মানুষের সঙ্গে প্রতারণা মেনে নেয়া যায় না। এজন্য আমরা আদালতে গিয়েছি। আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী এসব পণ্য বাজার থেকে প্রত্যাহার হচ্ছে কিনা সেটি এখন তদারকির বিষয়।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।