,

সংবাদ শিরোনাম :
«» তসলিমা নাসরিনের ভিসার মেয়াদ তিন মাস বাড়াল ভারত! «» মালয়েশিয়ায় অবৈধদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা «» চট্রগ্রাম রেঞ্জ’র শ্রেষ্ঠ সাব-ইন্সপেক্টর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন টেকনাফ মডেল থানার এস আই মোঃ বোরহান «» বিচ্ছেদের জন্য জেফ বেজোসকে গুনতে হচ্ছে ৩ হাজার ৮০০ কোটি ডলার «» ২৫ জুলাই ২৭৭টি স্থানীয় সরকারের নির্বাচন «» বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে মিরাজ «» ভিসা বন্ধ থাকা সত্বেও আবুধাবিতে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু «» মানুষ বহনে সক্ষম চন্দ্রযানের সফল পরীক্ষা «» বিমানবন্দর থেকেই ব্রিটিশ গায়িকাকে ফেরত পাঠাল ইরান «» চকরিয়ায় বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখানে মেয়ের মাকে গলা কেটে হত্যা «» সালমানের সঙ্গে দেড়কোটি টাকার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান সেই জায়রা ওয়াসিমের «» জুলুমের অপরাধ অমার্জনীয় «» প্রয়োজনে যুদ্ধ করব, সৌদিকে কাতারের হুঁশিয়ারি «» কারো কাছে আমরা পানি চাইবো না, নদী খনন করে পানি ধরে রাখা হবে, বললেন প্রধানমন্ত্রী «» রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে আসছেন ৩বাহিনীর প্রধান «» পেরুর ৪৪ নাকি ব্রাজিলের ১২ বছর, আজ রাতে কার অপেক্ষার অবসান হবে? «» মরণোত্তর চক্ষু দান করেছেন সানাই মাহবুব «» আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হলেন ইনাম আহমেদ চৌধুরী «» টেকনাফে বিস্তীর্ণ পাহাড়ে স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের বসবাস: পাহাড় ধ্বসের আশংকা «» মুরসির মৃত্যু নিয়ে জাতিসংঘের কাছে যেসব দাবি জানালেন এরদোগান «» ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ «» ইয়াবা রোহিঙ্গা বাংলাদেশের অভিশাপ! «» অবশেষে আলোচিত সেই ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার «» ১লাখ ৭০হাজার ইয়াবাসহ লেদার রবিউল র‌্যাব-১৫ এর হাতে আটক «» টেকনাফে ইয়াবা কিনতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’নারায়নগঞ্জের রাসেল নিহত «» ঘুষ বন্ধে পুলিশের ইউনিফর্ম থেকে পকেট খুলে নিচ্ছে কেনিয়া সরকার «» এক আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় করি না: শেখ হাসিনা «» ১২৫ রানেই অলআউট আফগানিস্তান «» টেকনাফ সমিতি ইউএই’র ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্টিত «» চট্টগ্রাম কমার্স কলেজে ভর্তি হবার সাফল্য অর্জন করেছে টেকনাফের মেধাবী ছাত্র নয়ন

ইসলাম প্রেমে হেরে গেল ইসরায়েলের ১০০ মিলিয়ন ডলার

ইহুদিবাদি রাষ্ট্র ইসরায়েলের দেয়া ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছেন হেবরনের এক ফিলিস্তিনি। পশ্চিম তীরের আল-সালাহ শহরের কাছে হেবরন এলাকায় একটি বাড়ি ও দোকান কিনতে পশ্চিম তীরের বাসিন্দা আবদুল রউফ আল-মহতাসেবকে ইসরায়েল সরকার ১০০ মিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব দেন। পুরনো শহরটির কেন্দ্রস্থলে ইব্রাহিমি মসজিদ উপেক্ষা করে তিনি এমনটি করতে পারেন না জানিয়ে ইসরায়েলের এ প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন।
আল-মহতাসেব তার বাড়ির ও দোকানের জন্য ইসরাইয়েলি সব ধরনের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি এ বিষয়ে আল-মায়াদিন টিভিতে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন, আমি ১০০ মিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছি। আমি পৃথিবীর সব টাকা ত্যাগ করতে পারি। তবে আমি আমার জন্মভূমি ও ধর্মের সঙ্গে বেঈমানি করতে পারি না। টাকা থাকা ভালো, তবে তা যখন পরিষ্কার হয়।
আল-মহতাসেব বলেন, আমাকে দেয়া প্রস্তাবটি প্রথমে ৬ মিলিয়ন ছিল। পরে এটি বেড়ে ৪০ মিলিয়ন এবং অবশেষে ১০০ মিলিয়নে দাঁড়ায়। তিনি জানান, জোর করেও তার অবস্থান পরিবর্তন করতে পারেনি। তিনি আরও জানান, তিনি ইব্রাহিমি মসজিদের পাহারায় থাকবেন। ইসরায়েলি মধ্যস্তকারীরা তাকে অস্ট্রেলিয়া বা কানাডায় নতুন জীবন শুরু করতে সাহায্য করবে। এ ছাড়াও নতুন ব্যবসারও ব্যবস্থা করবেন। কিন্তু তিনি সব ধরনের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন বলে জানান।
ইসরায়েলি মধ্যস্থকারীরা তার বাড়ির মূল্য আরও বৃদ্ধি করতে চায় বলে আল-মহতাসেব জোর দিয়ে বলেন। কিন্তু তিনি জন্মভূমিকে ভালোবাসেন। তিনি তার ২০ নাতি-নাতনি নিয়ে বাকি জীবন হেবরনে কাটিয়ে দিতে চান। তিনি দুঃখ করে বলেন, আমি আমার শৈশব কাটিয়েছি এখানে। কিন্তু আমার নাতি-নাতনিদের এখান থেকে বঞ্চিত করতে চাই না।
আমি পেশাগত কারণে জর্ডান ভ্রমণ বাতিল করি এবং ফিরে আসি হেবরনে। আমরা প্রকৃত জেলখানায় বসবাস করছি। তিনি বলেন, ‘ইসরায়েলি দালাল বোয়াজ আমার কাছে ৩০ মিলিয়ন ডলারের প্রস্তাব নিয়ে এসেছিল। একটি ইট নিয়ে বললাম তুমি কি এ ইট কিনতে চাও?’ সে বলল, আমি পুরো বাড়ি কিনতে চাই। আল-মহতাসেব প্রতিউত্তরে বলেন, একটি ইটের দামও ৩০ মিলিয়ন যথেষ্ট নয়। সূত্র: মিডল ইস্ট মনিটর।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।