,

সংবাদ শিরোনাম :
«» বেতনের আওতায় নারী ফুটবলাররা «» উখিয়ায় মেজবানের রান্না করা মাংসে ‘আল্লাহু’ লেখা «» এনজিওতে স্থানীয়দের অগ্রাধিকার দেয়ার নির্দেশ জেলা প্রশাসক’র «» আরও ৩১ রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশে পাঠাতে চায় ভারত «» সৌদি গণমাধ্যমে বাংলাদেশের চা «» সোনার বাংলা গড়তে সবার সহযোগিতা চাইলেন প্রধানমন্ত্রী «» ইয়াবা ব্যবসায়ীদের নামে বেনামের সম্পদ জব্দ ও শাস্তি নিশ্চিতের দাবী স্বচেতন মহলের «» জাতীয় পার্টি শক্ত বিরোধীদলের ভুমিকা রাখবে: রাঙ্গা «» মিস কালচার ওয়ার্ল্ড মুকুট জিতলেন প্রিয়তা «» সাগরপথে মানবপাচার বন্ধ হচ্ছে না , চক্রের টার্গেট এবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প «» সুশাসন নিশ্চিত করাই নতুন সরকারের প্রধান চ্যালেঞ্জ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী «» সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কারও অনুমতি নেবে না তুরস্ক: এরদোগান «» তাবলিগের সংকট নিরসনে দেওবন্দে যাচ্ছেন ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল «» এ সময়ের সবচেয়ে দামি ফুটবলার কে? «» টেকনাফ ৫০ শয্যা হাসপাতালে একযোগে ১২ জন নার্স যোগদান «» যে কারণে সিরিয়া থেকে ইরানি সেনা সরাতে চায় ইসরাইল «» নির্বাচন নিয়ে টিআইবির প্রতিবেদন মনগড়া: ইসি রফিকুল «» ৫০ আসনের ৪৭ টিতে অনিয়ম, আগের রাতে সিল ৩৩টিতে : টিআইবি «» ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচনের দাবি মোটেও সাংবিধানিক নয় : আইনমন্ত্রী «» ভোট কারচুপির জন্য আওয়ামী লীগকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে : ফখরুল «» নির্বাচনের প্রভাবে কক্সবাজারে হ্রাস পেয়েছে পর্যটকদের উপস্থিতি «» রোহিঙ্গা শিবিরে জন্ম নেয়া শিশুদের কান্না «» তফসীলের পর কক্সবাজারের চারটি আসনে ৬৯ মামলা : ৫ সহস্রাধিক আসামী «» আনন্দবাজারকে শেখ হাসিনা: আমরাই আসছি, মানুষ আমাদের চাইছেন «» শীতকালীন দলবদল: নেইমার-এমবাপ্পের নতুন বন্ধু হচ্ছেন কে? «» সৌদি আরবের জন্য উদ্বেগভরা একটি বছর শেষ: একসঙ্গে নাচলেন তরুণ-তরুণীরা «» সিইসির সঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বৈঠক: ভোটের দিন সহিংসতার আশঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের «» বাংলাদেশের নির্বাচনে ভীতিহীন পরিবেশ নিশ্চিতের আহ্বান জাতিসংঘ মহাসচিবের «» তিউনিশিয়ায় দুঃশাসনের প্রতিবাদে গায়ে আগুন দিয়ে এক সাংবাদিকের আত্মহত্যা «» ভোট পাবে না জেনেই বিএনপি সহিংসতা করছে: প্রধানমন্ত্রী

তফসীলের পর কক্সবাজারের চারটি আসনে ৬৯ মামলা : ৫ সহস্রাধিক আসামী

সিবিএন:একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর কক্সবাজারের ৪টি সংসদীয় আসনের বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৬৯ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী অফিসে ভাঙচুর, পোস্টারে অগ্নিসংযোগ, নাশকতামূলক কর্মকান্ডের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় বিএনপি-জামায়াতের ৫ হাজারের অধিক নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে।

এসব মামলায় বিএনপি সমর্থক সাংবাদিক, প্রবাসী, হাজতি, শিশু ও পাগলসহ নিরপরাধ অনেককে আসামি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। তাদের দাবি, এসব মামলায় এ পর্যন্ত ৫শত অধিক জনকে আটক করে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তছনছ করা হয়েছে বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের অনেক নেতাকর্মীর বসতঘর ও বাড়ির প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র।

বিএনপি নেতারা আরও দাবি করেন- মামলার পর থেকে গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন আসামি হওয়া জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতা এবং সক্রিয় কর্মীরা। এতে প্রচারণাসহ সব ধরনের কর্মকা- চালাতে বেগ পেতে হচ্ছে প্রার্থীদের। জেলার চারটি আসনের ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ও তাদের সমন্বয়কগণ অভিযোগ আকারে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী হাসিনা আহমদের একান্ত সহকারী সফওয়ানুল করিম জানান, তফসিলের পর থেকে পেকুয়া থানায় এ পর্যন্ত ৮টি মামলা হয়েছে। আর চকরিয়া থানায় হয়েছে ৭টি। এসব মামলায় পেকুয়ায় ৭-৮শ ও চকরিয়া থানায় প্রায় ৫শ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে। এসব মামলায় তিনি নিজেসহ পাগল, প্রবাসী, কারান্তরীণসহ নিরীহ অনেককে আসামি করা হয়েছে। ইতোমধ্যে দুই উপজেলায় বিভিন্ন পার্যায়ের অর্ধশত নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জেলা বিএনপির দফতর স¤পাদক ইউছুফ বদরী জানান, কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের মহেশখালীতে এ পর্যন্ত ৪টি মামলা হয়েছে। এতে আসামি হয়েছে তিন শতাধিক। উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতাসহ গ্রেফতার হয়েছেন ১৩ জন। কুতুবদিয়া থানায় নতুন কোনো মামলা না হলেও উপজেলা বিএনপির সাধারণ স¤পাদক মোবারক হোসেনসহ আটজনকে গ্রেফতার করে পুরোনো মামলায় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী লুৎফুর রহমান কাজলের একান্ত সহকারী দেলোয়ার হোসেন জানান, তফসিল ঘোষণার পর থেকে সদর ও রামুতে ধানের শীষ সমর্থক প্রায় সহস্রাধিক নেতাকর্মী ও সমর্থকের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত ২৬টি মামলা রুজু করা হয়েছে। এসব মামলায় ইতোমধ্যে দেড়শতাধিক জনকে গ্রেফতার করে কারান্তরীণ করা হয়েছে।

ধানের শীষের প্রার্থী কাজলের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর ধানের শীষের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে রামু থানায় ১৮টি এবং কক্সবাজার সদর থানায় ৮টি মিথ্যা মামলা রুজু হয়েছে।

এতে ২৩ দলীয় জোটের নেতাকর্মীসহ ধানের শীষের প্রায় আড়াই হাজার কর্মী-সমর্থককে আসামি করা হয়েছে। এসব মামলায় এই পর্যন্ত দেড় শতাধিক জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কক্সবাজার-৪ (উখিয়া-টেকনাফ) আসনের ধানের শীষের প্রার্থী শাহজাহান চৌধুরীর ছোট ভাই উপজেলা বিএনপির সভাপতি সরওয়ার জাহান চৌধুরী জানান, তফসিলের পর থেকে এ পর্যন্ত উখিয়া থানায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের করা ৫টি মামলায় দুই শতাধিক জনকে আসামি করা হয়েছে। উপজেলা বিএনপি সাধারণ স¤পাদক সোলতান মাহমুদ চৌধুরীসহ ১৫ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ আসনে বিএনপির প্রার্থীর পক্ষে কাজ করার কোন লোকই পাচ্ছেনা বলে স্থানীয় সুত্রগুলো জানিয়েছে। একইভাবে নির্বাচনের তফসীলের পর থেকে ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সর্বশেষ খবরে টেকনাফে পৃথক ১০টি মামলা দায়ের হয়েছে। এসব মামলায় শতাধিক আসামী কারাগারে রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সুত্রগুলো জানিয়েছে।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।