,

সংবাদ শিরোনাম :
«» খাসোগি নিয়ে সৌদির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেবে জার্মানি «» মহানবী (স.) কে কটূক্তি না করতে ইউরোপীয় আদালতে রুল জারি «» চাইলে ফের আলোচনা হতে পারে : ওবায়দুল কাদের «» ড. কামাল হোসেন রাজাকার: বিচারপতি মানিক «» টেকনাফে বন্ধুক যুদ্ধে ২ সাদ্দাম নিহত : অস্ত্র, বুলেট ও ইয়াবা উদ্ধার «» দুর্নীতির আরেক মামলায় খালেদা জিয়ার ৭ বছরের কারাদণ্ড «» ভারতে ঢুকে ৩ সেনাকে হত্যা পাকবাহিনীর «» সংসদে বিল উত্থাপন: ইয়াবা-হেরোইন সেবন ও বহনের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড «» ৯ মাসে প্রবাসী আয় ১২ হাজার মিলিয়ন ডলার: সংসদে প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী «» এসআই নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ «» ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন গ্রেফতার «» টেকনাফ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল নব নির্মিত ভবণ-উদ্ধোধন করলেন আব্দুর রহমান বদি এমপি «» আরও কত উইকেট পড়বে সময় বলে দেবে: ওবায়দুল কাদে «» আমরা সুষ্ঠু নির্বাচন চাই: সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এরশাদের ১৮ দফা ইশতেহার «» শহরের বিসিক এলাকায় র‌্যাবের অভিযান: ৫ কোটি টাকার ইয়াবাসহ আটক ৩ «» টেকনাফ সদরের চেয়ারম্যান শাহজাহান মিয়ার গাড়িতে ইয়াবা! চালক সহ আটক-২ «» সৌদি-বাংলাদেশ সম্পর্ক আরও উন্নত হবে: সৌদি বাদশাহ «» নিখোঁজের ৪ দিন পর নাফনদী থেকে হোয়াইক্যং স্কুলের দপ্তরি রশীদের গলাকাটা লাশ উদ্ধার «» টেকনাফের জালিয়ার দ্বীপ সংলগ্ন নাফ নদী হতে অজ্ঞাত দুটি লাশ উদ্ধার «» ইসরাইলকে থামালে বিশ্বে সন্ত্রাস বন্ধ হবে: মাহাথির «» সাবরাং ২নং ওয়ার্ড উপ- নির্বাচনে ছিদ্দিক আহদ নির্বাচিত «» টেকনাফে ঘুমন্ত অবস্থায় বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন! «» টেকনাফে র‌্যাবের অভিযান: চোরাই সিগারেটসহ রোহিঙ্গা নাগরিক আটক «» মুসলিম উম্মার প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান «» ইয়াবাসহ ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়রের পুত্র-পত্রবধূ গ্রেফতার «» কাকরাইলে আবারও তাবলিগের দুই গ্রুপ মুখোমুখি «» পাকিস্তানকে হারানোর পর বাংলাদেশকে অভিনন্দন আফ্রিদির «» কাশ্মিরে বন্দুকযুদ্ধে ভারতীয় সেনাসহ নিহত ৩ «» ভারতীয় বিমান বাহিনীর উপপ্রধান গুলিবিদ্ধ «» পরকীয়া অপরাধ নয় : ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায়

পরকীয়া অপরাধ নয় : ভারতের সুপ্রিম কোর্টের রায়

বৃহস্পতিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর:
পরকীয়া অপরাধ নয়। তবে বিবাহ বিচ্ছেদের কারণ হতে পারে। ভারতীয় দণ্ডবিধির পরকীয়া সংক্রান্ত ৪৯৭ ধারাকে অসাংবিধানিক বলে রায় দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। রায়ে প্রধান বিচারপতির পর্যবেক্ষণ, এই আইন স্বেচ্ছাচারীতার নামান্তর। নারীদের স্বাতন্ত্র্য খর্ব করে।

ইংরেজ শাসনামলে তৈরি আইনকে চ্যালেঞ্জ করে দায়ের হওয়া একটি মামলার প্রেক্ষিতেই এই রায় দিল শীর্ষ আদালত।১৮৬০ সালের ওই আইনে বলা হয়েছে, কোনও ব্যক্তি কোনও নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক করলে এবং ওই নারীর স্বামীর অনুমতি না থাকলে পাঁচ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড এবং জরিমানা বা উভয়ই হতে পারে।

এই আইনকে চ্যালেঞ্জ করেই একাধিক মামলা দায়ের করা হয়। মামলাকারীদের দাবি ছিল, ঔপনিবেশিক শাসনামলের ওই আইনে নারীদের সম্পত্তি হিসাবে গণ্য করে এই আইন তৈরি হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান সমাজ ব্যবস্থার প্রেক্ষিতে এই আইন বাতিল করা উচিত। আরও দাবি করা হয়েছে, একই অপরাধে পুরুষকে দোষী করলে নারীদেরও দোষী করতে হবে। এই মামলাতেই রায় দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে পরকীয়া আর অপরাধ বলে গণ্য হবে না।

শীর্ষ আদালত বলছে, নিছক পরকীয়া কখনও অপরাধ হতে পারে না। পরকীয়া সম্পর্কের কারণে জীবনসঙ্গী যদি আত্মহত্যা করেন এবং আদালতে যদি তার প্রমাণ দাখিল করা যায় তবেই এটি অপরাধে প্ররোচনা হিসেবে গণ্য হবে।

রায় দিতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র ও বিচারপতি এএম খানউইলকর বলেন, পরকীয়া বিবাহবিচ্ছেদের কারণ হতে পারে। তবে এটা অপরাধ হিসেবে গণ্য হতে পারে না। একই মত জানিয়ে বিচারপতি আরএফ নরিম্যানও বলেন, ৪৯৭ ধারা একটা সেকেলে আইন। এটা অসাংবিধানিক এবং এটি বাতিল করা উচিত।

পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চের আর এক বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, এই ধারা নারীদের সম্ভ্রম ও আত্মসম্মানের পক্ষে ধ্বংসাত্মক। কারণ এই আইন নারীকে স্বামীর ভূমিদাস হিসেবে বিবেচনা করে। শীর্ষ আদালতের সাংবিধানিক বেঞ্চের একমাত্র নারী বিচারপতি ইন্দু মালহোত্রাও একই মত পোষণ করেন।

তিনিও ৪৯৭ ধারাকে অসাংবিধানিক হিসেবে চিহ্নিত করে বলেন, বৈবাহিক সম্পর্কে স্ত্রী কখনোই স্বামীর ছায়া নন। প্রধান বিচারপতিও একই সুরে বলেছেন, নারীর ব্যক্তিগত সম্ভ্রম রক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। স্বামী তার প্রভূ নন। আইনগতভাবে স্বামীর চেয়ে স্ত্রীকে ছোট করে দেখানোটা ভুল।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।