,

সংবাদ শিরোনাম :
«» তসলিমা নাসরিনের ভিসার মেয়াদ তিন মাস বাড়াল ভারত! «» মালয়েশিয়ায় অবৈধদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা «» চট্রগ্রাম রেঞ্জ’র শ্রেষ্ঠ সাব-ইন্সপেক্টর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন টেকনাফ মডেল থানার এস আই মোঃ বোরহান «» বিচ্ছেদের জন্য জেফ বেজোসকে গুনতে হচ্ছে ৩ হাজার ৮০০ কোটি ডলার «» ২৫ জুলাই ২৭৭টি স্থানীয় সরকারের নির্বাচন «» বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে মিরাজ «» ভিসা বন্ধ থাকা সত্বেও আবুধাবিতে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের যাত্রা শুরু «» মানুষ বহনে সক্ষম চন্দ্রযানের সফল পরীক্ষা «» বিমানবন্দর থেকেই ব্রিটিশ গায়িকাকে ফেরত পাঠাল ইরান «» চকরিয়ায় বিয়ের প্রস্তাব প্রত্যাখানে মেয়ের মাকে গলা কেটে হত্যা «» সালমানের সঙ্গে দেড়কোটি টাকার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান সেই জায়রা ওয়াসিমের «» জুলুমের অপরাধ অমার্জনীয় «» প্রয়োজনে যুদ্ধ করব, সৌদিকে কাতারের হুঁশিয়ারি «» কারো কাছে আমরা পানি চাইবো না, নদী খনন করে পানি ধরে রাখা হবে, বললেন প্রধানমন্ত্রী «» রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে আসছেন ৩বাহিনীর প্রধান «» পেরুর ৪৪ নাকি ব্রাজিলের ১২ বছর, আজ রাতে কার অপেক্ষার অবসান হবে? «» মরণোত্তর চক্ষু দান করেছেন সানাই মাহবুব «» আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা হলেন ইনাম আহমেদ চৌধুরী «» টেকনাফে বিস্তীর্ণ পাহাড়ে স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের বসবাস: পাহাড় ধ্বসের আশংকা «» মুরসির মৃত্যু নিয়ে জাতিসংঘের কাছে যেসব দাবি জানালেন এরদোগান «» ডিআইজি মিজানের সম্পত্তি বাজেয়াপ্তের নির্দেশ «» ইয়াবা রোহিঙ্গা বাংলাদেশের অভিশাপ! «» অবশেষে আলোচিত সেই ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার «» ১লাখ ৭০হাজার ইয়াবাসহ লেদার রবিউল র‌্যাব-১৫ এর হাতে আটক «» টেকনাফে ইয়াবা কিনতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’নারায়নগঞ্জের রাসেল নিহত «» ঘুষ বন্ধে পুলিশের ইউনিফর্ম থেকে পকেট খুলে নিচ্ছে কেনিয়া সরকার «» এক আল্লাহ ছাড়া কাউকে ভয় করি না: শেখ হাসিনা «» ১২৫ রানেই অলআউট আফগানিস্তান «» টেকনাফ সমিতি ইউএই’র ঈদ পূণর্মিলনী অনুষ্টিত «» চট্টগ্রাম কমার্স কলেজে ভর্তি হবার সাফল্য অর্জন করেছে টেকনাফের মেধাবী ছাত্র নয়ন

দেশে কত অবৈধ বিদেশি নাগরিক জানে না কেউ

ডেস্ক রিপোটঃ দেশে কত বিদেশি নাগরিক আছেন, তার কোনও সঠিক পরিসংখ্যান নেই কারও কাছে। তাদের মধ্যে কতজন অবৈধ–সেটাও জানা নেই কারও। পুলিশের বহির্গমন (ইমিগ্রেশন) শাখায় বৈধ-অবৈধ বিদেশি নাগরিকের হিসাব রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। তবে ইমিগ্রেশন শাখা থেকে এ বিষয়ে কোনও তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করা হয়।

মাঝেমধ্যেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়া বিদেশি নাগরিকদের গ্রেফতার করা হয়। ইন্টারনেটে প্রতারণা, জাল টাকা, অস্ত্র, স্বর্ণ ও মাদক চোরাচালানসহ নানা অপরাধের অভিযোগ রয়েছে বিদেশি এসব নাগরিকের বিরুদ্ধে। ফলে দেশীয় অপরাধীদের পাশাপাশি বিদেশি অপরাধীদের বিষয়েও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীগুলো তৎপর রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

পুলিশ সদর দফতর সূত্র জানায়, সারাদেশে বৈধভাবে প্রায় দুই লাখ বিদেশি অবস্থান করছেন। এছাড়াও অবৈধভাবে বসবাস করছেন আরও কয়েক লাখ। কিন্তু এর কোনও সঠিক পরিসংখ্যান পুলিশ সদর দফতরের কাছে নেই। একটি তালিকা আছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের বহির্গমন শাখায়। সেখানকার তালিকারও হালনাগাদ কোনও তথ্য নেই পুলিশ সদর দফতরের কাছে। তবে সংস্থাটির একটি সূত্র জানায়, বর্তমানে এক হাজারের বেশি অবৈধ বিদেশি নাগরিক বাংলাদেশে অবস্থান করছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, অনেক বিদেশি বাংলাদেশে অবস্থান করে আন্তর্জাতিক অপরাধী চক্রের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়েছেন। বিভিন্ন সময় মাদক ব্যবসা ও হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে অনেক বিদেশিকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। হাজারেরও বেশি বিদেশি নাগরিককে সন্দেহের তালিকায় রেখেছেন গোয়েন্দারা। এছাড়া বেশিরভাগ বিদেশি কোথায় কী ধরনের কাজ করছেন তার বেশিরভাগ তথ্যই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে নেই। তাই বিদেশিদের নিরাপত্তার স্বার্থেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সমন্বয় বাড়াতে একটি টাস্ক গ্রুপ গঠন করা হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। বিদেশিদের যাতায়াতের পথ, বিনোদনের স্থান ও সামাজিক যোগাযোগের ক্ষেত্রগুলোতে সার্বক্ষণিক নজরদারিরও নির্দেশনা রয়েছে। অবৈধ বিদেশিদের বিষয়ে পুলিশের বিভিন্ন সংস্থার নজরদারিও রয়েছে। সন্দেহজনক হলে আটক করা ছাড়াও সংশ্লিষ্ট দেশের কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হবে। বিভিন্ন সময়ে র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশ তাদের গ্রেফতারও করছে।

গোয়েন্দারা জানান, বিদেশি নাগরিকরা অবৈধভাবে অবস্থান করে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থায় কাজ করার পাশাপাশি বিভিন্ন অপতৎপরতায় জড়িয়ে পড়ছে। বিশেষ করে পাকিস্তান, ভারত, নাইজেরিয়া, ঘানা, কঙ্গো, তাইওয়ান, মিয়ানমার, ফিলিপাইন, লিবিয়া, ইরাক, আফগানিস্তান, আলজেরিয়া, চীন, তানজানিয়া, উগান্ডা ও শ্রীলঙ্কার নাগরিকদের বিরুদ্ধেই এসব অভিযোগ বেশি।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) একটি নাইজেরিয়ান প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করে। এ বিষয়ে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এরা প্রথমে বৈধভাবেই বাংলাদেশে আসে। পরে প্রতারণা ও মাদক ব্যবসাসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তারা পাসপোর্ট ছিড়ে ফেলে বা লুকিয়ে ফেলে। ফলে আটক করার পর তাদের পরিচয় নিশ্চিতভাবে পাওয়া যায় না। তিনি বলেন, দেশে অবস্থান করা অবৈধ বিদেশিদের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দেশে কতো বিদেশি অবৈধভাবে অবস্থান করছে জানতে চাইলে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) বহির্গমন শাখার (ইমিগ্রেশন) বিশেষ পুলিশ সুপার আলমগীর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,‘এগুলো গোপনীয় বিষয়। তাছাড়া এ মুহুর্তে কতো অবৈধ বিদেশি বাংলাদেশে অবস্থান করছে সেটা আমার জানা নেই।’

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে ১৬৬ জন অবৈধ বিদেশিকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে জাল টাকা, হেরোইন, বিদেশি মদ, নেশা জাতীয় দ্রব্যসহ বিভিন্ন অবৈধ সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। র‌্যাবের মুখপাত্র ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, দেশে কতো অবৈধ বিদেশি অবস্থান করছে সেটা র‌্যাবের জানার বিষয় নয়। এজন্য আলাদা সংস্থা আছে। তবে দেশীয় অপরাধী ছাড়াও বাংলাদেশে অবস্থান করা অবৈধ বিদেশিদের অবস্থান শনাক্ত করতে র‌্যাবের গোয়েন্দারা কাজ করছেন। গোয়েন্দা তথ্য পাওয়ার পরই তাদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছেন।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।