Teknaf News24:: টেকনাফ নিউজ২৪ এ আপনাকে স্বাগতম
সংবাদ শিরোনাম :
«» প্রদীপ, লিয়াকত সহ সিনহা হত্যায় জেলে যাওয়া ৭ পুলিশ বরখাস্ত «» তদন্তে কক্সবাজারের এসপির নাম এলে তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা «» ৩১ হাজার ইয়াবাসহ র‍্যাবের হাতে রামুর আলাউদ্দিন আটক «» সিনহা হত্যায় ওসি প্রদীপসহ সাত আসামি কারাগারে «» এখন থেকে কক্সবাজারে সেনা ও পুলিশের যৌথ টহল «» ওসি প্রদীপ কুমার ও তার স্ত্রীর সম্পদ অনুসন্ধানে দুদক «» সিনহা হত্যা মামলার আসামি ওসি প্রদীপ কক্সবাজার আদালতে «» টেকনাফ থানার ওসি’র দায়িত্বে এবিএম এস. দোহা «» ওসি প্রদীপ, লিয়াকতসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারী পরোয়ানা «» ওসি প্রদীপ ইন্সপেক্টর লিয়াকত সহ ৯ পুলিশের বিরুদ্ধে সিনহার বোনের মামলা, তদন্তে র‌্যাব «» অনলাইন নিউজ পোর্টালের নিবন্ধন নিয়ে উদ্বেগের কারণ নেই : তথ্যমন্ত্রী «» মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ড: যৌথ সংবাদ সম্মেলনে যা বললেন সেনাপ্রধান ও আইজিপি «» করোনায় একদিনে আরও ৫০ জনের প্রাণহানি «» মামলা করার ‘প্রস্তুতি নিচ্ছে’ সিনহার পরিবার «» পুলিশের গুলিতে সাবেক সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনার তদন্ত শুরু «» কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধে দোকান খোলা রাত ৮টা পর্যন্ত, বাড়ির বাইরে ১০টার পর নয় «» জুলাই মাসে ৫০ কোটি টাকার চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য জব্দ করেছে বিজিবি «» ৭ আগস্ট থেকে আবুধাবি-ঢাকা রুটে এয়ার অ্যারাবিয়ার ফ্লাইট «» আল-জাজিরার মালয়েশিয়া কার্যালয়ে পুলিশি অভিযান «» সিনহার মাকে প্রধানমন্ত্রীর ফোন, বিচারের আশ্বাস «» বনানীর সামরিক কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত মেজর (অব.) সিনহা «» মাদক ব্যবসায়ীদের বিষাক্ত ইনজেকশনে মারার চিন্তা ফিলিপাইনের «» দুর্নীতির দায়ে মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী রাজাকের ১২ বছরের কারাদণ্ড «» কমিউনিটি ব্যাংক শুধু পুলিশের নয়, দেশের জনগণের ব্যাংক ড. বেনজীর «» উখিয়া-টেকনাফের নব্য কোটিপতিরা নজরদারিতে ! «» ইয়াবা বান্ধব ইউনিয়ন উখিয়ার পালংখালী! «» গরুর ওজন ৩৫ মণ! «» খারাংখালী সীমান্তে মাদকের চালান ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে গোলাগুলিতে নিহত-৪ ইয়াবা, অস্ত্র ও বুলেট উদ্ধার «» নয়াবাজারে ক্ষমতাসীন দলের ছত্রছায়ায় ইয়াবা কারবার! «» প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

দেশে কত অবৈধ বিদেশি নাগরিক জানে না কেউ

ডেস্ক রিপোটঃ দেশে কত বিদেশি নাগরিক আছেন, তার কোনও সঠিক পরিসংখ্যান নেই কারও কাছে। তাদের মধ্যে কতজন অবৈধ–সেটাও জানা নেই কারও। পুলিশের বহির্গমন (ইমিগ্রেশন) শাখায় বৈধ-অবৈধ বিদেশি নাগরিকের হিসাব রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। তবে ইমিগ্রেশন শাখা থেকে এ বিষয়ে কোনও তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করা হয়।

মাঝেমধ্যেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়া বিদেশি নাগরিকদের গ্রেফতার করা হয়। ইন্টারনেটে প্রতারণা, জাল টাকা, অস্ত্র, স্বর্ণ ও মাদক চোরাচালানসহ নানা অপরাধের অভিযোগ রয়েছে বিদেশি এসব নাগরিকের বিরুদ্ধে। ফলে দেশীয় অপরাধীদের পাশাপাশি বিদেশি অপরাধীদের বিষয়েও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীগুলো তৎপর রয়েছে বলে জানান সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

পুলিশ সদর দফতর সূত্র জানায়, সারাদেশে বৈধভাবে প্রায় দুই লাখ বিদেশি অবস্থান করছেন। এছাড়াও অবৈধভাবে বসবাস করছেন আরও কয়েক লাখ। কিন্তু এর কোনও সঠিক পরিসংখ্যান পুলিশ সদর দফতরের কাছে নেই। একটি তালিকা আছে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের বহির্গমন শাখায়। সেখানকার তালিকারও হালনাগাদ কোনও তথ্য নেই পুলিশ সদর দফতরের কাছে। তবে সংস্থাটির একটি সূত্র জানায়, বর্তমানে এক হাজারের বেশি অবৈধ বিদেশি নাগরিক বাংলাদেশে অবস্থান করছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, অনেক বিদেশি বাংলাদেশে অবস্থান করে আন্তর্জাতিক অপরাধী চক্রের সঙ্গে জড়িত হয়ে পড়েছেন। বিভিন্ন সময় মাদক ব্যবসা ও হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে অনেক বিদেশিকে গ্রেফতারও করা হয়েছে। হাজারেরও বেশি বিদেশি নাগরিককে সন্দেহের তালিকায় রেখেছেন গোয়েন্দারা। এছাড়া বেশিরভাগ বিদেশি কোথায় কী ধরনের কাজ করছেন তার বেশিরভাগ তথ্যই আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে নেই। তাই বিদেশিদের নিরাপত্তার স্বার্থেই আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সমন্বয় বাড়াতে একটি টাস্ক গ্রুপ গঠন করা হয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। বিদেশিদের যাতায়াতের পথ, বিনোদনের স্থান ও সামাজিক যোগাযোগের ক্ষেত্রগুলোতে সার্বক্ষণিক নজরদারিরও নির্দেশনা রয়েছে। অবৈধ বিদেশিদের বিষয়ে পুলিশের বিভিন্ন সংস্থার নজরদারিও রয়েছে। সন্দেহজনক হলে আটক করা ছাড়াও সংশ্লিষ্ট দেশের কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হবে। বিভিন্ন সময়ে র‌্যাব ও গোয়েন্দা পুলিশ তাদের গ্রেফতারও করছে।

গোয়েন্দারা জানান, বিদেশি নাগরিকরা অবৈধভাবে অবস্থান করে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থায় কাজ করার পাশাপাশি বিভিন্ন অপতৎপরতায় জড়িয়ে পড়ছে। বিশেষ করে পাকিস্তান, ভারত, নাইজেরিয়া, ঘানা, কঙ্গো, তাইওয়ান, মিয়ানমার, ফিলিপাইন, লিবিয়া, ইরাক, আফগানিস্তান, আলজেরিয়া, চীন, তানজানিয়া, উগান্ডা ও শ্রীলঙ্কার নাগরিকদের বিরুদ্ধেই এসব অভিযোগ বেশি।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) একটি নাইজেরিয়ান প্রতারক চক্রের চার সদস্যকে গ্রেফতার করে। এ বিষয়ে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার আবদুল বাতেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, এরা প্রথমে বৈধভাবেই বাংলাদেশে আসে। পরে প্রতারণা ও মাদক ব্যবসাসহ নানা অপরাধে জড়িয়ে পড়ে। ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর তারা পাসপোর্ট ছিড়ে ফেলে বা লুকিয়ে ফেলে। ফলে আটক করার পর তাদের পরিচয় নিশ্চিতভাবে পাওয়া যায় না। তিনি বলেন, দেশে অবস্থান করা অবৈধ বিদেশিদের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দেশে কতো বিদেশি অবৈধভাবে অবস্থান করছে জানতে চাইলে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) বহির্গমন শাখার (ইমিগ্রেশন) বিশেষ পুলিশ সুপার আলমগীর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন,‘এগুলো গোপনীয় বিষয়। তাছাড়া এ মুহুর্তে কতো অবৈধ বিদেশি বাংলাদেশে অবস্থান করছে সেটা আমার জানা নেই।’

র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে ১৬৬ জন অবৈধ বিদেশিকে গ্রেফতার করে। তাদের কাছ থেকে জাল টাকা, হেরোইন, বিদেশি মদ, নেশা জাতীয় দ্রব্যসহ বিভিন্ন অবৈধ সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। র‌্যাবের মুখপাত্র ও মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, দেশে কতো অবৈধ বিদেশি অবস্থান করছে সেটা র‌্যাবের জানার বিষয় নয়। এজন্য আলাদা সংস্থা আছে। তবে দেশীয় অপরাধী ছাড়াও বাংলাদেশে অবস্থান করা অবৈধ বিদেশিদের অবস্থান শনাক্ত করতে র‌্যাবের গোয়েন্দারা কাজ করছেন। গোয়েন্দা তথ্য পাওয়ার পরই তাদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছেন।

(10) বার এই নিউজটি পড়া হয়েছে

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।